আজ : রবিবার, ২৩শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ৮ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

উগ্রপন্থী বৌদ্ধ সন্ন্যাসীকে সরিয়ে দিল ফেসবুক


রোহিঙ্গা মুসলিমদের বিরুদ্ধে উসকানিমূলক পোস্ট দিয়ে মিয়ানমারের রাখাইনে জাতিগত দাঙ্গা সৃষ্টির মূল হোতা ‘বৌদ্ধ বিন লাদেন’। এই উগ্রপন্থী সন্ন্যাসীর উইরাথুর ফেসবুক পেইজ মুছে ফেলা হয়েছে। ক্রমাগত মুসলিমবিরোধী পোস্ট দিয়ে ব্যাপক সমালোচিত এই বৌদ্ধ সন্ন্যাসীর পেইজ গত জানুয়ারিতে মুছে ফেলা হয়েছে বলে সোমবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) জানিয়েছে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ।

উইথুরু, মিয়ানমারের অতি-জাতীয়তাবাদী আন্দোলনের পরিচিত মুখ। সংখ্যালঘু রাষ্ট্রহীন রোহিঙ্গা মুসলিমদের বিরুদ্ধে সামাজিক যোগাযোগের এ মাধ্যমে উসকানিমূলক পোস্ট দিয়ে ব্যাপকসংখ্যা ফলোয়ার বাড়িয়েছিলেন উগ্র এই বৌদ্ধ সন্ন্যাসী।

দেশটির রাখাইন রাজ্যে গেলো বছরের আগস্টে দেশটির সেনাবাহিনী রোহিঙ্গাবিরোধী ‘ক্লেয়ারেন্স অপারেশন’ শুরু করে। এ বর্বর অভিযানে প্রায় ৭ লাখ রোহিঙ্গা বাংলাদেশে পালিয়ে এসে আশ্রয় নিয়েছেন। জাতিসংঘ, যুক্তরাষ্ট্রসহ পশ্চিমাবিশ্ব মিয়ানমারের রক্তাক্ত এ অভিযানকে জাতিগত নিধনে পাঠ্যপুস্তকীয় উদাহরণের শামিল বলে চিহ্নিত করেছে।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম জায়ান্ট ফেসবুকের এক মুখপাত্র সোমবার ফরাসি বার্তাসংস্থা এএফপিকে বলেছেন, ‘উইরাথুর পেজ মুছে ফেলা হয়েছে।’

ই-মেইলে দেয়া এক বার্তায় ফেসবুকের ওই মুখপাত্র বলেন, ‘কোনো সংস্থা এবং ব্যক্তি; যারা অন্যের বিরুদ্ধে সহিংসতা ও ঘৃণার বিস্তার ঘটায় তারা আমাদের কমিউনিটির নীতিমালা অনুযায়ী নিষিদ্ধ। যদি কোনো ব্যক্তি ধারাবাহিকভাবে ঘৃণাত্মক কনটেন্ট শেয়ার করে, তাহলে সাময়িক নিষিদ্ধ ও অ্যাকাউন্ট মুছে ফেলাসহ বেশ কিছু ব্যবস্থা নেয়া হয় তার বিরুদ্ধে।’

তবে ফেসবুক পেইজ মুছে ফেলার ব্যাপারে উইরাথুর মন্তব্য পাওয়া যায়নি। তবে গত বছর এক ভিডিও বার্তায় তিনি বলেন, তার ফেসবুক পেইজ এক মাসের জন্য সাময়িক নিষিদ্ধ করেছে ফেসবুক। কারণ হিসাবে তিনি বলেন, মুসলিমরা ফেসবুক দখলে নিয়েছে।

এই ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ...
Top