আজ : সোমবার, ১৮ই জুন, ২০১৮ ইং | ৪ঠা আষাঢ়, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

পাবলিক কইতাসিল “হিরো আলম, হিরো আলম”


পাঁচ ফুট এক উচ্চতার রোগা এই তারকা কলকাতা গিয়েছিলেন একটা ইভেন্ট প্রোগ্রামে অংশগ্রহন করতে। আর সেখানেই বাংলাদেশের আলোচিত সমালোচিত এই ইউটিউব তারকার ইন্টারভিউ নিলেন ওপার বাংলার শুভঙ্কর চক্রবর্তী।

পাঠকের জন্য সেই সাক্ষাৎকার তুলে ধরা হল,

আচ্ছা আমরা শুনেছি ওপার বাংলার ফ্যান ক্রেজের কথা। এখানে (কলকাতা) কী করে লোকে আপনাকে চেনে?

দ্যাখেন, কলকাতায় আমি আগেও আইসি। এই নিয়া সেকেন্ড বার। আমার কাছে এপার-ওপার বলে কিছু নাই। দু’দেশ সমান সমান। প্রথমবার যখন আইলাম, আমায় নিয়া উন্মাদনা দেইখ্যা, অবাক হইসি। আর এইবার আওনে বুঝসি উন্মাদনা এতটুকুও কমে নাই। এয়ারপোর্টে ল্যান্ড করার পরই, পাবলিক কইতাসিল “হিরো আলম, হিরো আলম”।

আমার আসল নাম আশরাফুল হোসেন আলম। এই নামটা অনেকের অজানা। লোকে আমারে চিনে হিরো আলম বইল্যা। আমি কোনওদিন আশা করি নাই এত ভাইরাল হোয়া যামু। এইটা জানতাম, ইচ্ছাশক্তি থাকলে আপনেও হিরো হইতে পারেন।

নিজের নামের আগে ‘হিরো’ বসানোর কারণ হিসেবে সে জানায়, প্রতিটা হিরো-কে একজন প্রোডিউসার ‘হিরো’ বানায়। ৫০-৬০ সিনেমা ফ্লপ করতে করতে একজন হিরো হয়। কিন্তু আমারে কেউ হিরো বানায় নাই। আমি নিজেরে নিজেকে ‘হিরো’ বানাইসি। শুধু উপরওয়ালা সঙ্গে ছিল।

এই ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ...
Top