আজ : বৃহস্পতিবার, ১৬ই আগস্ট, ২০১৮ ইং | ১লা ভাদ্র, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

চান্দিমাল দুই ম্যাচে নিষিদ্ধ, মাহমুদউল্লাহর জরিমানা


শ্রীলঙ্কার অধিনায়ক দিনেশ চান্দিমাল দুই ম্যাচে নিষিদ্ধ হয়েছেন। বাংলাদেশের অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের হয়েছে ম্যাচ ফির ২০ শতাংশ জরিমানা। শনিবার কলম্বোতে অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা ম্যাচের দুই অধিনায়ককে দিয়ে গেল এই শাস্তি। স্লো ওভার রেটের কারণে এই শাস্তি বা জরিমানা। তার মানে, ১২ ও ১৬ মার্চে অনুষ্ঠেয় নিদাহাস ট্রফির ম্যাচদুটিতে খেলতে পারবেন না চান্দিমাল। স্বাগতিকরা ফাইনালে উঠতে পারলে শিরোপা লড়াইয়ে নামতে পারবেন তিনি। বিবৃতিতে জানিয়েছে ক্রিকেটের নিয়ন্তা সংস্থা আইসিসি।চান্দিমালকে গুরুতর ওভার-রেট এর অপরাধে দোষী পাওয়া গেছে। আইসিসির ম্যাচ রেফারি ক্রিস ব্রড চান্দিমালকে শাস্তি দিয়েছেন বাংলাদেশের বিপক্ষের ম্যাচে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে ২০ ওভার শেষ করতে না পারায়। অপরাধটা গুরুতর এই কারণে যে চার ওভার পিছিয়ে ছিল চান্দিমালের শ্রীলঙ্কা দল। আইসিসির কোড অব দ্য কন্ডাক্ট অনুযায়ী পিছিয়ে পড়া প্রথম ২ ওভারের জন্য দলটির খেলোয়াড়দের ম্যাচ ফির ১০ শতাংশ জরিমানা করার নিয়ম। এরপর বাড়তি প্রত্যেক ওভারে জন্য ২০ শতাংশ করে জরিমানা হয়। আর অধিনায়ক পান দুটি সাসপেনশন পয়েন্ট। আইসিসি জানিয়েছে, লঙ্কান প্রত্যেক খেলোয়াড়কে ৬০ শতাংশ জরিমানা করা হয়েছে।

দুটি সাসপেনশন পয়েন্ট মানেই দুই ম্যাচের নিষেধাজ্ঞা। সামনে টেস্ট, ওয়ানডে কিংবা টি-টুয়েন্টি যা থাকুক তার ওপরই বলবৎ হয় শাস্তিটা। সেই কারণে ভারত ও বাংলাদেশের বিপক্ষে সামনের দুই ম্যাচে খেলার সুযোগ নেই চান্দিমালের। তিনি অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুজের অনুপস্থিতিতে অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করছেন। এবার অন্য কাউকে ক্যাপ্টেন বানাতে হচ্ছে শ্রীলঙ্কাকে।

এদিকে, বাংলাদেশ অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহও রেকর্ড গড়ে জেতা ওই ম্যাচে স্লো ওভার রেটের শিকার। আইসিসির বিধান অনুযায়ী, তার জরিমানা ম্যাচ ফির ২০ শতাংশ। আর বাংলাদেশ দলের প্রত্যেক খেলোয়াড়কে দিতে হবে ম্যাচ ফির ২০ শতাংশ জরিমানা। পরের ১২ মাসে আবার বাংলাদেশ টি-টুয়েন্টিতে নিম্নতর এই স্লো ওভার রেটের শিকার হয় তাহলে তখন মাহমুদউল্লাহ অধিনায়ক থাকলে তাকে নিষেধাজ্ঞা পেতে হবে। মাহমুদউল্লাহ অপরাধ মেনে নেওয়ায় শুনানির দরকার পড়েনি। চান্দিমাল চাইলে এই শাস্তির বিরুদ্ধে আপিল করতে পারবেন।

সূত্র : আইসিসি।

এই ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ...
Top