আজ : সোমবার, ২৩শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ৯ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

এখন জবাব দিতে শিখেছে বাংলাদেশ


টাইগারদের সাবেক অধিনায়ক মোহাম্মদ আশরাফুল।বলেছেন, আম্পায়ারের ভুল সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ করে মাঠ ছাড়ার পথেও ছিল টাইগাররা। পক্ষে-বিপক্ষে নানা মতামত থাকলেও এ ঘটনার পক্ষেই হেঁটেছেন টাইগারদের সাবেক অধিনায়ক মোহাম্মদ আশরাফুল। এমনকি এটার দরকার ছিলো বলেও মনে করেন তিনি। বাংলাদেশকে যে দমিয়ে রাখার দিন শেষ এটা ক্রিকেট বিশ্বে বার্তা হিসেবে কাজ করবে বলেও মনে করেন টেস্ট ক্রিকেটের সর্বকনিষ্ঠ এ সেঞ্চুরিয়ান।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে শুক্রবার দারুণ এক ম্যাচ জিতেছে বাংলাদেশ। এ ম্যাচ জয়ে দারুণ খুশি আশরাফুল। তার দেখা সেরা ম্যাচও বলেছেন। তবে বেশি খুশি হয়েছেন টাইগারদের আগ্রাসনে। বিশেষ করে শেষ দিকে নো-বলকে নিয়ে টাইগারদের অবস্থান মনে ধরেছে তার। ক্রিকেট বিশ্বে যে তাদের দমিয়ে রাখার দিন শেষ এটা তারই এক বার্তা বললেন সাবেক এ অধিনায়ক,

বাংলাদেশের ইনিংসের শেষ ওভারের ঘটনা। ইশুরু উদানার কাঁধের উপরে রাখা প্রথম বাউন্সারটা ব্যাটে বলে করতে পারেননি মোস্তাফিজুর রহমান। এটা ভেবেই হয়তো পরের বলও বাউন্সার দিলেন উদানা। কিন্তু টি-টুয়েন্টি ক্রিকেটে যে কাঁধের উপর দুটি বাউন্সার দেওয়ার এখতিয়ার নেই। তাই আবেদন জানান মাহমুদউল্লাহ। তাতে সাড়াও দেন লেগ-আম্পায়ার। কিন্তু মূল আম্পায়ার লঙ্কানদের আবেদনে নো-বল বাতিল করলেন। তাতে ক্ষোভে ফেটে পরেন মাহমুদউল্লাহ। ডাগআউটে বসা সতীর্থরাও। দের দলে। আমরা যে বড় দল এটা তারই প্রমাণ।’

Top