আজ : শনিবার, ২১শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ৭ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

নাটোরে অগ্নিকান্ডঃ খোলা আকাশের নীচে রাত কাটছে আট পরিবারের


জেলা প্রতিনিধি, নাটোরঃ
নাটোরের বড়াইগ্রামের দ্বারিকুশী প্রতাপপুর গ্রামে অগ্নিকান্ডে বাড়িঘর পুড়ে যাওয়া যাওয়ায় দুই দিন যাবৎ খোলা আকাশের নীচে বসবাস করছেন ক্ষতিগ্রস্থ ৮টি পরিবারের সদস্যরা।

জোনাইল ইউপি চেয়ারম্যান তোজাম্মেল হক জানান, মঙ্গলবার বিকালে দ্বারিকুশী প্রতাপপুর গ্রামের ভ্যানচালক আব্দুল মান্নানের শোবার ঘরে বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে আগুন লাগে। এ সময় প্রতিবেশীরা এগিয়ে এসে নেভানোর চেষ্টা করলেও আগুন দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে একে একে রঞ্জু, খেরু মোল্লা, আব্দুল খালেক, জুলফিকার ও মৃণাল হোসেন, এলাহী বখশ ও শুকুর মাহমুদ সরদারের বাড়ির টিনশেড সবগুলো ঘর ভস্মিভূত করে। এতে তাদের নগদ দুই লাখ সাতচল্লিশ হাজার টাকা, আড়াই ভরি স্বর্ণের গহণা, টিভি, ফ্রিজ, ধান, রসুন, কাপড়-চোপড়, গৃহস্থালী সামগ্রী ও বাড়ির যাবতীয় মালামাল পুড়ে যাওয়াসহ শুকুর মাহমুদ সরদারের ৫টি ছাগল দগ্ধ হয়ে মারা যায়। খবর পেয়ে নাটোর থেকে ফায়ার সার্ভিসের টিম এসে স্থানীয়দের সহযোগিতায় প্রায় এক ঘন্টা চেষ্টা করে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। এ অগ্নিকান্ডে কমপক্ষে পনের লাখ টাকার আর্থিক ক্ষতি হয়েছে বলে দাবী করেছেন ক্ষতিগ্রস্থরা।

ক্ষতিগ্রস্থ আব্দুল মান্নান কান্নাজড়িত কন্ঠে বলেন, নগদ টাকা ও মালামালসহ মাথা গোঁজার ঠাঁইটুকুও পুড়ে শেষ হয়ে গেছে। ভ্যান চালানোর আয় দিয়ে নতুন করে বাড়িঘর করার মত সাধ্য না থাকায় খোলা আকাশের নীচেই দিন কাটছে আমাদের।

বড়াইগ্রাম উপজেলা নির্বাহী অফিসার আনোয়ার পারভেজ জানান, খবর পেয়ে আমি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। বৃহস্পতিবার তাদের ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণসহ সহযোগিতার জন্য জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে লিখিতভাবে জানানো হয়েছে। এছাড়া আমরা উপজেলা প্রশাসন থেকেও যতটুকু পারি সহযোগিতা করবো।

এই ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ...
Top