আজ : সোমবার, ২১শে মে, ২০১৮ ইং | ৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

নাটোরে সাড়ে বারো’শ একর জমিতে জলাবদ্ধতা ॥ চাষীরা বিপাকে


নাটোর প্রতিনিধিঃ
নাটোরে একটি খাল সংস্কারের অভাবে প্রায় সাড়ে বারো’শ একর জমি বছরের বেশির ভাগ সময় পানির নীচে নিমজ্জিত থাকে। এতে বিলের তিন ফসলী জমিতে বর্তমানে কোন ফসল চাষ হচ্ছে না। ফলে চরম বিপাকে পড়েছেন এ এলাকার কৃষকেরা।

এলাকাবাসী জানান, বড়াইগ্রাম উপজেলার নগর ইউনিয়নের ধানাইদহ গুচ্ছগ্রাম এলাকায় খলিসাডাঙ্গা নদী থেকে লালপুর উপজেলার সাতপুকুরিয়া বাঁধ পর্যন্ত বিস্তৃত খাল সংস্কার না করায় ভোজন বিল ও পদ্মবিলের কমপক্ষে সাড়ে ১২শ একর জমি প্রায় সারা বছর পানির নীচে ডুবে থাকে। সংস্কার না করায় প্রায় ১০ কিলোমিটার দীর্ঘ খালের বেশ কয়েকটি জায়গায় বেদখল হয়ে গেছে। এছাড়া পলি জমে ভরাট হয়ে গেছে খালের তলদেশ। ফলে বিলের পানি বের হতে না পারায় বর্ষাকালেতো বটেই, শুকনো মৌসুমেও বিলে পানি জমে থাকে। এতে বিল পাড়ের ৫-৬টি গ্রামের প্রায় সহ¯্রাধিক কৃষক চরম বিপাকে পড়েছেন। মঙ্গলবার সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, ভোজন বিল ও পদ্মবিলে কোথাও কোমর পানি, কোথাওবা হাঁটু পানি। বিলের পানিতে কেউ কেউ মাছ শিকার করছেন। পানি অপসারণ না হওয়ায় বিল জুড়ে কোন আবাদ চোখে পড়েনি।

ধানাইদহ গ্রামের কৃষক আকতার হোসেন বলেন, ভোজন বিলে আমার ১২ বিঘা জমিতে ৭-৮ বছর আগেও তিন ফসলের চাষ হতো। কিন্তু খাল ভরাট হয়ে পানি অপসারণের পথ বন্ধ হয়ে যাওয়ায় বিলে শুকনো মৌসুমেও পানি জমে থাকে। এতে সারা বছর কোন আবাদ করতে পারছি না।

নগর ইউপি চেয়ারম্যান নীলুফার ইয়াসমিন ডালু বলেন, খালটি সংস্কার না করায় এলাকার কৃষকেরা চরম বিপাকে পড়েছেন। এসব ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকদের জীবন-মরণের প্রশ্ন এটি। তাই কৃষকদের কথা ভেবে অবিলম্বে খালটি খননের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন জানাচ্ছি।

এই ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ...
Top