আজ : রবিবার, ২৩শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ৮ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

এরশাদের ‘শেষ কথা’ শোনার অপেক্ষায় বিএনপি


‘বিএনপির একটি বড় অংশ জাতীয় পার্টিতে যোগ দিতে যাচ্ছেন’ হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের এমন বক্তব্যের জবাবে উল্টো জাতীয় পার্টির দিকেই তীর ছুড়েছেন বিএনপি নেতারা। তাদের দাবি, এরশাদ সকালে এক কথা বলেন, বিকালে আরেক কথা বলেন, এখন তার শেষ কথা কোনটা এর জন্য তারা আপেক্ষা করছেন। কারণ ইতোমধ্যে এমন খবর বেরিয়েছে যে, জাতীয় পার্টিও নাকি বিএনপি জোটে যাওয়ার জন্য চেষ্টা চালাচ্ছে। কারণ তার ক্ষমতার বাইরে থাকতে চায় না। সরকারের অবস্থা ‘খারাপ’ দেখে এখন এরশাদ ‘ভারসাম্য’ হারিয়ে ফেলেছেন। আবার কেউ কেউ বলছেন, এরশাদ ‘দিবা স্বপ্ন’ দেখছেন।

মঙ্গলবার বিকালে তাৎক্ষণিক এক প্রতিক্রিয়ায় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, ‘উনি তো এমন কথাই বলেন। এখন কী বলব? উনার দলে যাওয়ার জন্য আমরা যে আবেদন পত্র দিয়েছি সেটা দেখাক।’

তিনি বলেন, ‘উনি একেক সময় একেক কথা বলেন। কখনও বলেন সরকার গঠন করবেন, কখনো নির্বাচনের কথা বলেন। বয়স হয়ছে তো, তাই মনে হয় মানসিক ভারসাম্য হারিয়েছেন। তাই উনি দিবাস্বপ্ন দেখছেন যে, বিএনপি নেতারা তার দলে যোগ দেবেন।’

এ ছাড়া দলের যুগ্ম-মহাসচিব অ্যাডভোকেট সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল বলেন, ‘এরশাদের মহাসচিব আমাদের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ করছেন বিএনপিতে আসার জন্য। এখন এরশাদ সাহেব সকালে এক কথা, বিকালে আরেক কথা বলেন। দেখি শেষ কথাটা কী বলেন? আমরা সেই অপেক্ষায় আছি।’

জানতে চাইলে বিএনপির সহ-সংগাঠনিক অ্যাডভোকেট আবদুস সালাম আজাদ বলেন, ‘জীবনের শেষ বয়সে এরশাদ গণতন্ত্র রক্ষার জন্য গণতন্ত্রের শিবির বিএনপির গণতান্ত্রিক আন্দোলনে একাত্মতা পোষণ করে অতীতের ভুল থেকে শিক্ষা নিতে চান। এর চেয়ে বেশি কিছু বলা নেই।’

এর আগে মঙ্গলবার দুপুরে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান তার জেলা রংপুরে স্থানীয় সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে বিএনপির কয়েকজন শীর্ষ নেতা জাতীয় পার্টিতে (জাপা) যোগ দিচ্ছেন বলে ইঙ্গিত দেন। এর পর সাংবাদিকরা জানতে চান, ‘বিএনপির কারা কারা জাতীয় পার্টিতে যোগ দিতে চাইছেন।’

তখন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান বলেন, ‘এখনও এ ব্যাপারে কিছু বলা যাবে না। সময়ে সব জানতে পারবেন।’

Top