আজ : বৃহস্পতিবার, ১৬ই আগস্ট, ২০১৮ ইং | ১লা ভাদ্র, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

চাঁদের অদেখা অংশ দেখাবে চীন!


যেখানে কোনো পরাশক্তিই এখনো যাওয়ার কথা চিন্তা করেনি, সেখানেই যাওয়ার পরিকল্পনা করছে চীন। এ বছর চাঁদের অদেখা দিকে মানুষ পাঠানোর কথা ভাবছে এশিয়ার উদীয়মান অর্থনীতির দেশটি।

চাঁদে অভিযানে যাওয়ার নেতৃত্ব দিতে চীন দুটি মিশন শুরু করবে বলে জানিয়েছে দ্য গার্ডিয়ান। একসঙ্গে দুটি মিশনের নাম দেওয়া হয়েছে ‘চাং ই ৪’। চীনের চন্দ্রদেবীর নামে নামকরণ করা হয়েছে এই অভিযানগুলোর।

চাঁদের অদৃশ্য প্রান্তে অবতরণ করতে সফল হলে চীন চন্দ্র বিজয়ের অভিযানে যুক্তরাষ্ট্র ও সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়নের অর্জনকে ছাড়িয়ে যাবে।

পৃথিবীর কেউ আগে চাঁদে অবতরণের এমন প্রকল্প গ্রহণ করেননি।

উল্লেখ্য, চাঁদের অপর পাশটি পৃথিবী থেকে সরাসরি দেখা যায় না। ১৯৫৯ সালের আগ পর্যন্ত ওই দিকটি পৃথিবীর মানুষের কাছে অদৃশ্য ছিল।

তৎকালীন সোভিয়েত ইউনিয়নের ‘লুনা স্পেস ৩’ নামের অনুসন্ধানী নভোযান ওই বছর প্রথম পৃথিবীর মানুষের কাছে অদৃশ্য চন্দ্রপৃষ্ঠের ছবি তুলে পাঠায়।

প্রযুক্তিগত দিক দিয়ে অত্যন্ত জটিল এই অভিযান পরিচালনা করে চীন আমাদের সীমানা আরো বিস্তৃত করছে বলে মন্তব্য করেন লেখক ব্রায়ান হার্ভি।

এ বছরের জুনে চাং ই ৪-এর প্রথম পর্যায়ে একটি স্যাটেলাইট মহাশূন্যে ভাসাবে চীন। এটি চাঁদের ৩৭ হাজার মাইল পেছনে অবস্থান করবে। সেখানে থেকে পৃথিবীর সঙ্গে চাঁদের অদেখা পৃষ্ঠের যোগাযোগ স্থাপন করবে স্যাটেলাইটটি।

এই যোগাযোগ স্থাপন সম্পূর্ণ হলে, চীন মিশনের দ্বিতীয় ধাপ শুরু করবে। ওই পর্যায়ে চাঁদের অপর পৃষ্ঠে অবতরণের জন্য একটি নভোযান পাঠাবে দেশটি।

আগে, ২০১৩ সালে চাঁদে জেড র‍্যাবিট পাঠিয়ে পৃথিবীজুড়ে হৈ চৈ ফেলে দিয়েছিল চীন। ১৯৭৬ সালের পর সেটিই ছিল চাঁদে সফল সফট ল্যান্ডিং করা একমাত্র যান।

এই ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ...
Top