আজ : সোমবার, ১৬ই জুলাই, ২০১৮ ইং | ১লা শ্রাবণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

বিদেশে খালেদার ছেলেদের ১০০০ মিলিয়ন ডলারের সন্ধান মিলেছে


বিদেশে বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়ার ছেলেদের এক হাজার মিলিয়ন ডলারসহ বিপুল পরিমাণ সম্পদের সন্ধান পাওয়া গেছে বলে সংসদকে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বুধবার জাতীয় সংসদে প্রধানমন্ত্রীর জন্য নির্ধারিত প্রশ্নোত্তর পর্বে সরকারি দলের সদস্য বেগম ফজিলাতুন নেসা বাপ্পির এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন। খবর: বাসস।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘পৃথিবীর দুর্নীতিগ্রস্ত ব্যক্তির তালিকায় খালেদা জিয়ার স্থান তিন নম্বর হিসেবে সংবাদ প্রকাশ হয়েছে। তার পুত্র আরাফাত রহমান কোকোর পাচারকৃত ২০ লাখ ৪১ হাজার ৫৩৪ দশমিক ৮৮ সিঙ্গাপুরি ডলার ইতোমধ্যে সেদেশ হতে ফেরত আনা হয়েছে। একই সঙ্গে অর্থ পাচারের সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।’

তিনি বলেন, তারেক রহমান দেশের বাইরে প্রচুর অর্থ পাচার করেছে। তারেক জিয়া ও তার ব্যবসায়ী পার্টনার গিয়াস উদ্দিন আল মামুন একটি বিদেশি কোম্পানীকে কাজ দেয়ার নামে ২১ কোটি টাকা সিংঙ্গাপুরের সিটিএনএ ব্যাংকে পাচার করে।
এছাড়া বেলজিয়ামে ৭৫০ মিলিয়ন ডলার, মালয়েশিয়ায় ২৫০ মিলিয়ন ডলার, দুবাইতে কয়েক মিলিয়ন ডলার মূল্যের বাড়ি, সৌদি আরবে মার্কেটসহ অন্যান্য সম্পত্তির সন্ধান পাওয়া গেছে বলে দাবি করেন প্রধানমন্ত্রী।

তিনি আরও বলেন, খালেদা জিয়ার দুই পুত্র তারেক রহমান ও আরাফাত রহমান কোকোর নাম প্রকাশিত হয়েছে। ট্যাক্স হেভেনে জিয়া পরিবারের বিনিয়োগের পরিমাণ ৫০০ কোটি টাকা।

এরআগে সৌদি আরবে খালেদা জিয়া একটি শপিংমলের মালিক ও সেখানে তার বিপুল সম্পদ রয়েছে এবং তিনি মানি লন্ডারিংয়ের সঙ্গেও জড়িত- এমন বক্তব্য দেয়ায় প্রধানমন্ত্রীকে ক্ষমা চাইতে আইনি নোটিশ দিয়েছিলেন বিএনপি চেয়ারপারসন। অন্যথায় আইনি ব্যবস্থা নেবেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

Top